09/24/20

প্রবচন ডেস্ক: পদ্মা সেতু হয়ে রেল সংযোগ বরিশাল, কুয়াকাটা, পায়রাবন্দর পর্যন্ত নেওয়া হবে। আর আগামী বছর ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাসেই যান চলাচলের জন্য পদ্মা সেতু খুলে দেওয়া হবে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে মাদারীপুরের শিবচরের পাঁচ্চরে অ্যামিটি ক্যাফে রেস্তরায় পদ্মা সেতুর রেল লাইনে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে পুনর্বাসন সুবিধার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় ক্ষতিগ্রস্ত ২৮ পরিবারের মাঝে ১ কোটি ১২ লাখ টাকার পুনর্বাসন সুবিধার চেক প্রদান করা হয়। এর আগে মন্ত্রী মুন্সিগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরা পয়েন্টে পদ্মা সেতুর রেল সংযোগের কাজ পরিদর্শন করেন। 

প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব প্রকৌশলী গোলাম ফখরুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. শামছুজ্জামান, সিএসসির প্রধান সমন্বয়ক মেজর জেনারেল এফ এম জাহিদ হোসেন, র্ডপ চেয়ারম্যান মো. আজহার আলী তালুকদার, মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, পুলিশ সুপার মাহবুব হাসান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রবচন ডেস্ক: রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকাভুক্তি ও জাতীয় পরিচয়পত্র জালায়াতির ঘটনা তদন্তে গঠিত কমিটি ‘শিগগির’ প্রতিবেদন দেবে বলে জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুল ইসলাম জানিয়েছেন।

ওই প্রতিবেদন হাতে পাওয়া পর জালিয়াত চক্রে জড়িতদের শনাক্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ‘দুর্নীতি ও এনআইডি জালিয়াতি রোধে নেওয়া পদক্ষেপ’ তুলে ধরতে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন সাইদুল ইসলাম।

প্রায় ১০ লক্ষাধিক রোহিঙ্গার বায়োমেট্রিক তথ্যসহ আলাদা রোহিঙ্গা ডেটাবেজ স্থাপন করা হয়েছে। এরমধ্যেও জালিয়াতির মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি প্রকাশ্যে এলে গত বছর ঘটনা তদন্তে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামে অনুসন্ধান টিম পাঠানো হয়। তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে অধিকতর তদন্তে একটি কারিগরি এবং একটি প্রশাসনিক কমিটি গঠন করা হয়।

এনআইডি উইং ডিজি সাইদুল বলেন, “গেল শুক্র, শনি, রবি ও সোমবার তদন্ত কমিটি সরেজমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ডেটা এন্ট্রির কাজের ল্যাপটপ খোয়া যাওয়ার পর সেগুলো কে কে ব্যবহার করেছে, কীভাবে তা ব্যবহৃত হয়েছে, ঘরে-বাইরে কারা সম্পৃক্ত ছিল এ জালিয়াতিতে- প্রতিটি বিষয় আমরা এনালাইসি করছি। এখন তদন্ত কমিটি দ্রুততম সময়ে প্রতিবেদন দেবে।”

প্রতিবেদনের ভিত্তিতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, “অনৈতিক কাজ করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না। নির্বাচন কমিশন বা এনআইডি উইংয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হোক এটা আমরা কিছুতেই চাই না। জালিয়াতিতে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।”


রোহিঙ্গাদের এনআইডি জালিয়াতির তদন্তে ৩ কমিটি  

তদন্ত কমিটিতে বুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের প্রতিনিধি রয়েছে। অপরদিকে অধিকতর তদন্তের সুবিধার্থে একজন যুগ্মসচিবের নেতৃত্বে প্রশাসনিক কমিটি গঠন করা হয়।

এনআইডি জালিয়াতিতে সম্পৃক্ত দুই ডেটা এন্ট্রিঅপারেটেরকে প্রকল্প থেকে চাকরিচ্যুতি ছাড়াও আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান এনআইডি উইং মহাপরিচালক।

তিনি বলেন, আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে নিয়োগকৃত এসব লোকবল অনিয়মে জড়িত হলে চাকরিচ্যুত করা হয়।

“কিন্তু এরপরও অনেকে কৌশলে জালিয়াতিতে জড়িয়ে পড়ে। এজন্য দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনো জালিয়াতকারীকেই ছাড় দেব না।”

ঢাকায় এনআইডি জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত আইডিইএ প্রকল্পের আউটসোর্সিং ডেটা এন্ট্রি অপারেটর দুইজনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

এছাড়া বিভিন্ন অনৈতিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গত ৮ বছরে সর্বমোট ৩৯ জনকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয় এবং কালো তালিকাভুক্ত করা হয়।


লাখো দ্বৈত ভোটারের বিষয়ে তৎপরতা

ভোটার তালিকা হালনাগাদে প্রায় দুই লাখের মতো দ্বৈত ভোটার শনাক্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। তাদের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান এনআইডি উইং মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাইদুল ইসলাম ।

তিনি বলেন, “আমরা ইতোমধ্যে দুই লাখ সাত হাজার দ্বৈত ভোটার শনাক্ত করেছি। যারা দ্বৈত হয়েছে আমরা তাদের নোটিফাই করছি। এসএমএসের মাধ্যমেও তাদের জানিয়ে দিচ্ছি। তবে সবার মোবাইল নম্বর না থাকায় উপজেলা নির্বাচন অফিসের মাধ্যমে তাদের অবহিত করার ব্যবস্থা করছি।”

দ্বৈত ভোটার পাওয়া গেলে প্রাথমিকভাবে বিধি মোতাবক প্রথমটি রেখে পরবর্তী ভোটার তথ্য ব্লক করে দেওয়া হয়। উদ্দেশ্যমূলকভাবে তথ্য গোপন করে দ্বৈত ভোটার হওয়ার প্রমাণ পাওয়ায় ইতোমধ্যে ৯৩৭ জনের এনআইডি লক করাসহ ‌আইন অনুসারে নির্বাচন কমিশন ফৌজদারি মামলা দায়ের করার নির্দেশনা দিয়েছে। এ কাজে সম্পৃক্ততা ও  অবহেলার বিপরীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

“দ্বৈত ভোটারের সবার বিষয়গুলো আমরা অবজার্ভ করছি। আমরা দেখছি উদ্দেশ্য কী ছিল। তবে আমরা সবার বিরুদ্ধে মামলা করিনি, করবও না। যারা উদ্দেশ্যমূলকভাবে এটি করেছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করব। তবে কেউ যদি সে বিষয়ে কমিশনে আবেদন করে, সেটি আমরা যাচাই-বাছাই করে কারণ জানব, যে কোন উদ্দেশ্যে তারা এটি করেছে। সেটি আমরা কমিশনকে অবহিত করে ব্যবস্থা নেব,” বলেন এনআইডি উইং মহাপরিচালক।

ইতোমধ্যে দেশব্যাপী এনআইডি সেবা কার্যক্রম তদারকিতে সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনার জন্য পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট চারটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপী ১০টি টিমের মাধ্যমে সাঁড়াশি ও ঝটিকা অভিযান পরিচালনা করা হবে।

 

অনলাইন ডেস্ক: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ ও আল হাইয়াতুল উলিয়ার চেয়ারম্যান, মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার সাবেক মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফীর রুহের মাগফিরাত কামনা করে সৌদি আরবের মসজিদে নববিতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ মদিনা মোনাওয়ারা শাখার উদ্যোগে বুধবার বাদ মাগরিব এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার সংগঠনটির এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

দোয়া পরিচালনা করেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ মদিনা মোনাওয়ারা শাখার আমির ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয়  মজলিশে শুরার সদস্য মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী। উপস্থিত ছিলেন জয়েন্ট সেক্রেটারি মাওলানা লুৎফর  রহমান মাদানী,  মাওলানা মিছবাহুজ্জামান, হাফেজ শহীর উদ্দীন, হাফেজ মাওলানা মুহিবুর রহমান মাছুম, মাওলানা আজিমুল ইসলাম সেলিম। এসময় দেশে-বিদেশের মুসল্লিরা উপস্থিত ছিলেন।

 দোয়া মাহফিলে বক্তারা বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) আমাদের অভিভাবক ছিলেন। তিনি আমৃত্যু দ্বীন ইসলামের বহুমুখী খেদমত আন্জাম দিয়ে গেছেন। ইসলাম বিদ্বেষী নাস্তিক্যবাদীদের বিরুদ্ধে আন্দোলনে তিনি মহাজাগরন তৈরি করেছিলেন। তার অবদান দেশ ও জাতি আজীবন শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ রাখবে। তার ইন্তেকালে মুসলিম উম্মাহ দরদি একজন অভিভাবক হারিয়েছে। 

 

হাবীব আনওয়ার, হাটহাজারী: বৃহত্তর চট্টলার ঐতিহ্যবাহী দীনি ও সেবামূলক সংগঠন আল আমিন সংস্থার আয়োজনে সদ্য প্রয়াত আমীরে হেফাজত শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর জীবন, কর্ম ও অবদান শীর্ষক আলোচনা সভা ও দুআ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার আসর নামাযের পরে সংস্থার হাটহাজারীস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ আলোচনা ও দুআ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে দুআ পরিচালনা করেন সংস্থার উপদেষ্ঠা পরিষদের সদস্য মাওলানা ক্বারী মঈনুদ্দীন। 

আলোচনা সভায় বক্তাগণ বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. তাঁর বর্ণাঢ্য জীবনে ইসলাম, দেশ ও জাতির বহুমুখী খেদমত আঞ্জাম দিয়েছেন। বিশ্বনবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ইজ্জত রক্ষায় শাহবাগী নাস্তিক ব্লগারদের বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক হেফাজত আন্দোলনে তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্ব ও ভূমিকা ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে লিখা থাকবে।

বক্তাগণ আরো বলেন, শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. আল আমিন সংস্থার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন। সংস্থার দীনি ও সেবামূলক কাজে তিনি আমাদের সবসময় উৎসাহ অনুপ্রেরণা যোগাতেন। পরামর্শ দিতেন। তাঁর ইন্তেকালে আমরা একজন যোগ্য অভিভাবক হারালাম। তাঁর শূণ্যস্থান কখনো পূরণ হবার নয়।

তারা বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. অত্যন্ত দক্ষতা ও বিচক্ষণতার সাথে দীর্ঘদিন হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালকের গুরু দায়িত্ব আঞ্জাম দিয়েছেন। তিনি স্বীয় এহতেমামীর সময়ে  সাততলা বিশিষ্ট দৃষ্টিনন্দন বায়তুল করীম জামে মসজিদ, বিশাল শিক্ষা ভবন ও আহমদ মঞ্জিলসহ একাডেমিক  বহু উন্নয়নমূলক কাজ করে গেছেন। মাদরাসার শিক্ষাব্যবস্থা সংস্কারেও তিনি বহু অবদান রেখে গেছেন। আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব রহ. তাঁর কাজে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন মানুষের হৃদয়ে। বিশেষ করে শাইখুল ইসলাম রহ. দলমত নির্বিশেষে সকলকে এক পতাকা তলে এনে যেভাবে দীনের বহুমুখী  কাজ করে গেছেন ইতিহাসে তার  দৃষ্টান্ত  বিরল। 

বক্তারা বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. এর চিন্তা চেতনা ও  আদর্শ বুকে ধারণ করে ইসলাম ও মুসলমানদের কল্যাণে সকল বাতিল ও ইসলামবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমাদের সামনের জীবনে পথ চলতে হবে।

আলোচনা সভা ও দুআ মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার সেক্রেটারি জেনারেল জনাব মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ, সহ-সভাপতি মাওলানা আবু আহমদ, মাওলানা হাবিবুল হক বিন খালেদ, মাওলানা আবদুস সমি, মাওলানা মাহমুদুল হোসাইন, মাওলানা মুফতি নাছির উদ্দীন, মাওলানা আনোয়ার, মাওলানা হোসাইন আহমদ, মাস্টার জাহিদ হোসেন, হাফেজ রিজওয়ান আরমান, আবুল হাসেম, হাফেজ ওসমান, হাফেজ শফিউল আজম, মাওলানা আজম উদ্দীন, মাওলানা ফয়জুল্লাহ,মাওলানা শোয়াইব বিন ইয়াহিয়া, মাওলানা কামরুল ইসলাম, মুফতি সোলাইমান প্রমুখ।

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget