Articles by "ভিডিও"

বিশেষ প্রতিবেদক: গতকাল ১৭ জুন দারুল উলুম হাটহাজারীতে শূরা কমিটির একটি বৈঠকে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী কর্তৃক সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে ইস্তফা প্রদানের বিষয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশ পায়।

এ বিষয়ে মেখল মাদরাসার পরিচালক আল্লামা নোমান ফয়জীর বরাতে দেশের বেশকিছু সংবাদমাধ্যম জানায় যে, তিনি বলেছেন, এত দিন মাদ্রাসার মহাপরিচালক শাহ আহমদ শফী এবং সহকারী পরিচালক জুনায়েদ বাবুনগরী ছিলেন। বুধবার বৈঠকে জুনায়েদ বাবুনগরীকে অব্যাহতি দিয়ে তাঁর স্থলে মাদ্রাসার জ্যেষ্ঠ শিক্ষক শেখ আহমদকে সহকারী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। বাবুনগরী নিজেও দায়িত্ব থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। আহমদ শফীর অনুপস্থিতিতে শেখ আহমদই ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি ভারপ্রাপ্ত থেকে পুরোপুরি মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করবেন কি না, তা নির্ধারণ করবে পরবর্তী শুরা কমিটি।

তবে এ বিষয়ে আল্লামা বাবুনগরীর পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব হুজুরের সভাপতিত্বে আজ হাটহাজারী মাদরাসার মজলিসে শূরার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত বৈঠকের শেষ পর্যায়ে কিছু বিষয় সম্পর্কে জানতে  আমাকে বৈঠকে ডাকা হয়েছে। সেসব বিষয়ে আমি আমার সুস্পষ্ট বক্তব্য শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী সাহেব ও শূরার সদস্যদের সামনে উপস্থাপন করেছি। কিন্তু বৈঠকে শূরার সদস্যদের নিকট মুঈনে মোহতামীমের পদ থেকে পদত্যাগ  চাওয়া বা পদত্যাগের  বিষয়ে কোনধরনের সম্মতি আমি প্রকাশ করিনি। এবং উক্ত বৈঠকে আমাকে মুঈনে মোহতামীম এর পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার বিষয়ে শূরার সদস্যগণ আমাকে কিছুই বলেননি। বৈঠক শেষ হওয়ার অনেক পরে একজন শূরার সদস্য মুঈনে মোহতামীমের পদ থেকে আমাকে অব্যাহতির বিষয়টি জানিয়েছেন।

আমি জানতে পেরেছি, মাদরাসার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে মাওলানা নোমান ফয়জীর বরাতে এবং একটি ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় মাওলানা নুরুল আমীন সাহেবের বরাতে প্রচারিত হচ্ছে যে,আমি মজলিসে শূরার সদস্যদের নিকট মুঈনে মোহতামীম বা সহযোগী পরিচালকের পদ থেকে পদত্যাগের সম্মতি প্রকাশ করায় তারা আমাকে উক্ত পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন। অথচ এ কথা ভিত্তিহিন। আমি শূরার সদস্যদের নিকট কোন পদত্যাগ চাইনি।

এ সম্পর্কে শূরা সদস্য আল্লামা নোমান ফয়জীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রবচনকে বলেন, শূরার বৈঠকে বাবুনগরী ইস্তফা দেননি। তাঁর পক্ষ থেকে এমন কোন বিষয় আলোচনায় আসেনি। যারা আমার বরাতে এমন কথা বলছে তারা মিথ্যা কথা বলছে। আমি এমন কোন কথা বলিনি।

তিনি আরোও বলেন, অনেকে বলছে আমি আনুষ্ঠানিকভাবে বৈঠকের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছি। এটাও মিথ্যা কথা। উক্ত বৈঠকের আনুষ্ঠানিক কোন ঘোষণা এখন পর্যন্ত দেয়া হয়নি।


নাস্তিক থেকে মুফাস্সির হওয়া একজন কিংবদন্তির গল্প অবলম্বনে আমাদের আজকের ভিডিও। সেই কিংবদন্তির নাম মাওলানা আব্দুল মাজেদ দরিয়াবাদী। তিনি প্রথম দিকে নাস্তিক ছিলেন। পরে পূর্ণ ইসলােমে ফিরে এসে কালজয়ী তাফসিরগ্রন্থ ‘তফিসিরে মাজেদী রচনা করেন। এই মহান ব্যক্তির গল্প অবলম্বনে আজ দেখুন ইশতিয়াক সিদ্দিকীর ভিডিও।



বিষয়: তারাবীর নামায নিয়ে একটি বিতর্ক ও তার অবসান

আলোচক:
মুফতি জসিম উদ্দীন (হাফি.),
সিনিয়র মুহাদ্দিস, দারুল উলুম হাটহাজারী



করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অনেকের মনেই অনেক প্রশ্ন। বিশেষ করে মুসলমানদের মনে ইসলামের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রয়েছে হাজারো প্রশ্ন। এসব প্রশ্নই আমরা করেছিলাম দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মুফতি জসিমুদ্দীন হাফি. এর কাছে। ভিডিওতে দেখুন তাঁর বিস্তারিত জবাব।
সাক্ষাতকারগ্রহণ: মাওলানা ইশতিয়াক সিদ্দিকী ভিডিও প্রডিউস: প্রবচন মিডিয়া এডিট: কাজী হামদু্ল্লাহ

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget